সর্বশেষ:
ঢাকা, এপ্রিল ১১, ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭

cosmicculture.science: বিজ্ঞানকে জানতে ও জানাতে
মঙ্গলবার ● ২১ আগস্ট ২০১৮
প্রথম পাতা » বিজ্ঞান সংবাদ: পদার্থবিদ্যা » বৃহস্পতিগ্রহের রঙ্গীন ডোরাকাটা বায়ুপ্রবাহের রহস্যের মূলে কি এর চৌম্বকক্ষেত্র?
প্রথম পাতা » বিজ্ঞান সংবাদ: পদার্থবিদ্যা » বৃহস্পতিগ্রহের রঙ্গীন ডোরাকাটা বায়ুপ্রবাহের রহস্যের মূলে কি এর চৌম্বকক্ষেত্র?
১১৩ বার পঠিত
মঙ্গলবার ● ২১ আগস্ট ২০১৮
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

বৃহস্পতিগ্রহের রঙ্গীন ডোরাকাটা বায়ুপ্রবাহের রহস্যের মূলে কি এর চৌম্বকক্ষেত্র?

বৃহস্পতিগ্রহের রঙ্গীন ডোরাকাটা বায়ুপ্রবাহ
বৃহস্পতিগ্রহের সবচেয়ে পরিচিত বৈশিষ্টগুলো ভেবে দেখুন, গ্রেট রেড স্পট আর গ্রহকে ঘিরে বিভিন্ন রঙের ঢেউয়ের মতো আবরণগুলোর কথা মনে পরবে। এই অপূর্ব রংগুলোর উৎস গ্রহটির বায়ুমণ্ডলের রসায়ন, তবে বিভিন্ন রঙের ঢেউগুলোর কারণ হতে পারে বহু বছর ধরে বয়ে চলা বাতাসের স্থানীয় প্রবাহগুলো - যারা গ্রহটিকে পূর্ব-পশ্চিম দিক ঘিরে বয়ে চলে। এদের বলা হয় জোনাল ফ্লো। এই স্থানীয় প্রবাহগুলো আমাদের পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলের জেট স্ট্রিমগুলোর মতো।
তবে পৃথিবীর মতো বৃহস্পতিগ্রহের বায়ুপ্রবাহ পাহাড় পর্বতের বাধার মুখে পরেনা, তাই বৃহস্পতির রঙ্গীন ডোরাগুলো এত প্রতীয়মান আর আকর্ষণীয়। বহুদিন ধরে বিজ্ঞানীদের প্রশ্ন, কতটুকু গভীর এই বলয় রেখাগুলো? শুধু কি বাইরের আবরণে? নাকি গভীরতম বায়ুপ্রবাহ একইভাবে বিচ্ছিন্ন? এই প্রশ্নের উত্তর মিললো এ বছরের শুরুর দিকে, নাসার জুনো মিশন থেকে পাওয়া তথ্যমতে, বৃহস্পতির জোনাল ফ্লো ১৯০০ মাইল গভীর পর্যন্ত বিস্তৃত, বৃহস্পতির রেডিয়াস এর ৪%। এর নিচে, যেই গ্যাসগুলো গ্রহটিকে তৈরী করেছে তারা সংযুক্তভাবে আবর্তিত। কেন এই পরিবর্তন?
‘অস্ট্রোফিজিক্যাল জার্নাল’ এ প্রকাশিত পেপার এ ফিজিসিস্ট জেফরি পার্কার এবং নাভিদ কনস্টান্টিনো হিসাব করে দেখিয়েছেন চৌম্বক ক্ষেত্র ঘূর্ণায়মান ফ্লুইডের মধ্যে জোনাল ফ্লো সৃষ্টি ব্যাহত করতে পারে। তারা এই গবেষণার ফল কতটা বাস্তব তা দেখার জন্য জুনো মিশন এর সাথে কাজ করার পরিকল্পনা করছেন। যদি চৌম্বক ক্ষেত্রে বৃহস্পতিগ্রহের বলয়ের গভীরতম রহস্য লুকিয়ে থাকে তাহলে আমরা আমাদের নিকটস্থ বৃহত্তম গ্রহটির সম্পর্কে আর একটু বেশি জানতে পারবো।

সূত্র: অ্যাস্ট্রোনমি.কম
২০ আগস্ট, ২০১৮

 



বিষয়: #  #


আর্কাইভ

পাঠকের মন্তব্য

(মতামতের জন্যে সম্পাদক দায়ী নয়।)
শুক্র গ্রহে প্রাণের সম্ভাব্য নির্দেশকের সন্ধান লাভ
আফ্রিকায় ৫০ বছর পরে নতুনভাবে হস্তিছুঁচোর দেখা মিলল
বামন গ্রহ সেরেসের পৃষ্ঠের উজ্জ্বলতার কারণ লবণাক্ত জল
রাতের আকাশে নিওওয়াইস ধূমকেতুর বর্ণিল ছটা,আবার দেখা মিলবে ৬,৭৬৭ বছর পরে!
বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০২০
মহাকাশে পদার্পণের নতুন ইতিহাস নাসার দুই নভোচারী নিয়ে স্পেসএক্স রকেটের মহাকাশে যাত্রা
ক্রিকেটের ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতি বা বৃষ্টি আইনের যুগ্ম প্রবক্তা গণিতবিদ টনি লুইস আর নেই
গ্রহাণূ (52768) 1998 OR2 আগামী ২৯ এপ্রিল পৃথিবীকে নিরাপদ দূরত্বে অতিক্রম করবে
আকাশে আজ দুপুরে সূর্যের রংধনু বলয় দেখা গিয়েছে
নিঃশ্বেষ হতে পারে যেসকল মূল্যবান ধাতু